ইয়েমেনে খাদ্যের দুর্ভিক্ষ হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে

0
61

জাতিসংঘের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইয়েমেনে খাদ্যের যোগান মারাত্মকভাবে কমছে। বর্তমানে দেশটি ইতিহাসের সবচেয়ে বড় দুর্ভিক্ষে নিপতিত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

ইয়েমেনের সঙ্গে স্থল, জল ও আকাশসীমানা বন্ধ করে দিয়েছে সৌদি আরব। আগের দিন ইয়েমেন সীমান্ত থেকে রিয়াদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার পেছনে ইরানের হাত রয়েছে বলে সৌদি আরব অভিযোগ করেছিল। অবশ্য ইরান সৌদি আরবের ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে মুখপাত্র বাহরাম ঘাসেমি বলেছেন, সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন জোট যে অভিযোগ করেছে তা অন্যায্য, দায়িত্বহীনতা, ধ্বংসাত্মক ও উত্তেজক।

শনিবার রিয়াদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার আগেই সৌদি আরব রিয়াদের কাছে ক্ষেপণাস্ত্রটি ভূপাতিত করে।

রিয়াদের কিং খালিদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আঘাত হানার আগেই ক্ষেপণাস্ত্রটি ভূপাতিত করা হলেও এর বিক্ষিপ্ত কিছু অংশ বিমানবন্দরে এসে পড়ে। তবে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এতে তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি বা কোনো প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেনি।

ইয়েমেনের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ করে দিয়ে সৌদি আরব এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইয়েমেনে ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের কাছে সামরিক সরঞ্জাম এবং ক্ষেপণাস্ত্র পাচার বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

অস্থায়ীভাবে বিমান, সমুদ্র ও স্থলবন্দর বন্ধ থাকা সত্ত্বেও সৌদি আরব ত্রাণ ও মানবিক কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের আসা ও যাওয়ার বিষয়টি তদারক করবে। আরো বলা হয়েছে, জোট বাহিনী নিশ্চিত করেছে, ইরানের এই কর্মকাণ্ডের জবাব উপযুক্ত সময়ে ও উপযুক্তভাবে দেওয়ার অধিকার সৌদি আরবের রয়েছে।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, ইয়েমেনের ২২টি প্রদেশের ১০টিই খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এগুলো দুর্ভিক্ষ থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে।

জাতিসংঘের হিউম্যানিটারিয়ান নিডস ওভারভিউয়ের (মানবিক সহায়তা পর্যবেক্ষণ) নভেম্বর মাসের হিসাব থেকে জানা যায়, ইয়েমেনের দুই কোটি ৩০ লাখ মানুষের মধ্যে এক কোটি ৪৪ লাখ খাদ্য নিরাপত্তাসহ নানা সমস্যায় ভুগছে।

এ বছরের মার্চ মাস থেকে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট হুথি বিদ্রোহীদের দমনে ইয়েমেনে বিমান হামলা চালিয়ে আসছে। এ হামলার পর থেকে ইয়েমেনে চরম মানবিক সংকট দেখা দেয়। ১৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে এবং আরো দ্বিগুণ মানুষ খাদ্য, পানি,জ্বালানীর মতো মৌলিক চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হচ্ছে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here