এভিন লুইস আর জো ডেনলির ঝড়ের সামনে কোয়ালিফায়ারের স্বপ্ন ভেস্তে গেল চিটাগংয়ের

0
114
এভিন লুইস আর জো ডেনলির ঝড়ের সামনে কোয়ালিফায়ারের স্বপ্ন ভেস্তে গেল চিটাগংয়ের

চট্টগ্রাম-পর্বে যেন প্রাণ পেয়েছে বিপিএল। এই পর্বে এসেই তো চিটাগং ভাইকিংস প্রথম ম্যাচেই তুলেছে ২১১ রান; যা এবারের বিপিএলের সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর। ভালো ব্যাটিংয়ের ধারাবাহিকতায় আজ ঢাকার বিপক্ষেও ১৮৭ রান করেছে স্বাগতিক দল। তবে এভিন লুইস আর জো ডেনলির ঝড়ের সামনে ধোপে টেকেনি এই সংগ্রহ। সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস ৭ উইকেটে হারিয়েছে ভাইকিংসদের। আর এই হারে কোয়ালিফায়ারের স্বপ্ন একরকম শেষ হয়ে গেল দলটির।

টসে জিতে ব্যাট করতে নামা চিটাগংয়ে ওপেনার সৌম্য ফেরেন ১ রানে। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে ১০৭ রানের জুটিতে ঢাকাকে চাপে ফেলে দেন রনকি ও এনামুল হক। এই টুর্নামেন্টে নিজের দারুণ ফর্ম ধরে রেখে আজও ফিফটি পেয়েছেন রনকি; করেছেন ৪০ বলে ৫৯ রান। অন্য প্রান্তে আরও আগ্রাসী ছিলেন এনামুল।

আসরের দ্বিতীয় ফিফটিতে ৪৭ বলে ৭৩ রান করেছেন এনামুল। যদিও ভুল বোঝাবুঝিতে স্টিয়ান ফন জিলকে রান আউট করানোর যন্ত্রণাও তাঁকে পোহাতে হয়েছে। শেষ দিকে সিকান্দার রাজার ১১ বলে ২৬ রানের বদৌলতে ১৮৭ রান তোলে ভাইকিংস।

রান তাড়া করতে গিয়ে ১ রানেই শহীদ আফ্রিদির উইকেট হারায় ঢাকা। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১১৮ রান তুলে সব চাপ হাওয়ায় ভাসিয়ে দেন এভিন লুইস ও জো ডেনলি। ৩১ বলে ৭৫ রান করেছেন লুইস। ১২৪ রানে ডেনলিও আউট হলে কিছুটা চাপে পড়েছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু ক্যামেরন ডেলপোর্ট আর সাকিব আল হাসানের অবিচ্ছিন্ন ৬৭ রানের জুটিতে এক ওভার হাতে রেখেই ম্যাচ জিতে নিল ঢাকা।

সুনীল নারাইন বাদে বল হাতে দুই দলের কোনো বোলারই সাফল্য পাননি। ১৪টি ডট বল দিয়ে ১১ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন এই ক্যারিবীয় স্পিনার। তবে এভিন লুইসের ঝড়ে সবকিছু ম্লান হয়েছে। ৯ ছক্কা আর ৩ বাউন্ডারিতে ৭৫ রান করেছেন এই ওপেনার। যে কারণে ১৮৮ রানের বড় লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েও ম্যাচ জিততে পারেনি চিটাগং। ম্যান অব দ্য ম্যাচ তাই ঢাকা ডায়নামাইটসের এই ক্যারিবীয় ওপেনার।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here