ওজন কমানোর ১৫টি সহজ পরামর্শ

0
115

আমরা সকলেই সুন্দর হতে চাই, সুস্থ থাকতে চাই। কিন্তু নিত্য নিয়ম, সময়ের স্বল্পতা, আমাদের আলস্য, অনীহা মিলিয়ে নিজের পরিচর্যা করাটা সব সময় হয়ে ওঠে না। কিন্তু নিজেকে ফিট রাখাটা একান্ত জরুরি।

সুস্বাস্থ্যের জন্য তো বটেই, শারীরিক সৌন্দর্যের জন্যও নারী-পুরুষ উভয়েই ভাবেন ওজন কমাবেন। কিন্তু কর্মব্যস্ততার কারণে অনেক সময়েই ওজন কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যায়াম বা ডায়েট করা হয়ে ওঠে না। তাই পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হচ্ছে ওজন কমানোর ১৫টি সহজ পরামর্শ। এসব কৌশল অবলম্বন করলে ওজন কমানো অতটা কঠিন হবে না।

. অধিক পানি পান করুন
পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে শরীর আর্দ্র থাকে, এতে আপনার পেট ভরা ভাবও তৈরি হবে। ক্ষুধাও কম লাগবে, এ কারণে আপনি কম খাবেন, ফলে ধীরে ধীরে ওজনও কমবে। দিনে অন্তত ১০ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করুন।

২. ফাস্টফুড বর্জন করুন
রান্নাঘরে যেসব উচ্চমাত্রার ক্যালরিসমৃদ্ধ খাবার বা ফাস্টফুড রয়েছে, সেগুলো সরান। এর বদলে স্বাস্থ্যকর খাবার রাখুন, রাখুন ফল ও সবজি। স্বাস্থ্যকর খাবার আপনার অভ্যাসকে কিছুতেই বদলাতে দেবে না।

চিনি  শর্করা খাবার থেকে দূরে
চিনি বা মিষ্টিজাতীয় খাবার থেকে ১৫ দিন অন্তত দূরে থাকুন। পাশাপাশি ভাত, রুটিসহ শর্করাজাতীয় খাবার কম খান। এসব খাবার কম খেলে ওজন দ্রুত কমে যাবে।

প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খান
খাবার তালিকায় প্রোটিনসমৃদ্ধ রাখুন। এতে পেশি স্বাস্থ্যকর হবে। প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খাওয়া বাদ দিলে শরীরে বিরূপ প্রভাব পড়বে। ডিম, দুধ, মুরগির মাংস, ডাল খাদ্যতালিকায় রাখুন। তবে লাল মাংস (গরু, খাসি) এড়িয়ে চলুন।

. বেশি বেশি সবজি খান
সবজি খেলে ওজন কমে, তাই থালায় বেশি বেশি সবজি রাখুন। সবজির মধ্যে রয়েছে পুষ্টি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এগুলো শরীর ভালো রাখতে সাহায্য করে।

ক্যালরি গ্রহণ করুন
আপনার শরীরের জন্য কতটুকু ক্যালরি দরকার, সে অনুযায়ী ক্যালরিসমৃদ্ধ খাবার খান। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

. না খেয়ে থাকার অভ্যাস পরিহার করুন

পাঠক, না খেয়ে ওজন কমানো যায় না! তিন বেলা খাবার খান। একেবারে খুব বেশি না খেয়ে অল্প পরিমাণ খাবার খান।

. কোমলপানীয় বর্জন করুন
প্রক্রিয়াজাত খাবার, কোমল পানীয়, সোডা-এই খাবারগুলোকে একেবারে না বলুন। এগুলোর মধ্যে উচ্চ পরিমাণ ক্যালরি থাকে, এতে ওজন বাড়ে।

ছোট থালায় খাবার খান
বড় থালায় খেলে খাবার বেশি খাওয়া হয়। তাই ছোট থালায় খাবার খান। খাবার কম খেতে চামচও ব্যবহার করতে পারেন। হাত দিয়ে খেলে বেশি খাবার একবারে মুখে আসে, এতে খাবার বেশি খাওয়া হয়।

১০আয়নার সামনে বসে খান
শুনতে হয়তো অদ্ভুত লাগছে, তবে গবেষণায় বলা হয়, যেসব লোক আয়নার সামনে বসে খাবার খায় তাদের ওজন দ্রুত কমে। তারা নিজেকে দেখতে থাকে আর ভাবতে থাকে ওজন কমানো দরকার।

১১হাঁটুন
ওজন কমাতে হাঁটার কোনো বিকল্প নেই। আর হাঁটা তো কেবল ওজনই নয়, কমাবে হৃদরোগের ঝুঁকিও। বিষণ্ণতা বা মন খারাপ ভাবও কমে যাবে অনেক।

১২একটু কম খান
আগে যেখানে হয়তো তিনটি রুটি খেতেন, সেখানে একটি রুটি খান। অথবা যেখানে এক থালা ভাত খেতেন, সেখানে এক কাপ ভাত খান। এর বদলে পেট ভরুন সবজি আর ফল দিয়ে।

১৩. লেবুর রস
রাতে ঘুমানোর আগে লেবুর রস খেলে তা শরীরের চর্বি কাটাতে সহায়তা করে।

১৪. খালি পেটে মধু
খালি পেটে সকালে রোজ মধু খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো, যা ওজন কমাতেও সহায়তা করে।

১৫.গ্রিন-টি
গ্রিন-টি আপনার দেহের বাড়তি মেদ ঝরাতে সহায়তা করে। তাই, রোজ দিনে একবার হলেও গ্রিন-টি পান করা উচিত।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here