কর্মক্ষেত্রে চাপ কমানোর উপায়

0
95

কাজের ক্ষেত্রে মানসিক চাপ বোধ করেন না এমন কর্মী খুঁজে পাওয়া কঠিন। বিভিন্ন কারণে এই চাপ হতে পার। ‘আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়াশনে’র গবেষণায় দেখা গেছে নির্দিষ্ট কয়েকটি কারণে মানুষ চাকুরির ক্ষেত্রে মানসিক চাপ অনুভব করে, নিজেকে অসুখী ভাবে। যেমন-কম বেতন, অতিরিক্ত কাজের চাপ, মনের মতো কাজ না পাওয়া, সামাজিক নিরাপত্তার অভাব, কাজ সম্পর্কিত যেকোন সিদ্ধান্ত না নেয়ার ক্ষমতা, চাহিদা আর পাওয়ার মধ্যে পার্থক্য ইত্যাদি।

নিজের কাজের ক্ষেত্রে কেউ যদি মানসিক অশান্তিতে থাকে তাহলে তার প্রভাব বাড়িতেও পড়ে। কারণ বাড়িতে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একজন অসুখী কর্মী তার কর্মক্ষেত্রের কথা ভুলে যায় না। এটা তার শরীর ও মন দুইয়েরই ক্ষতি করে। মানসিক চাপ থাকায় একজন মানুষের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা যেমন- মাথাব্যথা, ঘুমের সমস্যা, অল্পতেই মেজাজ খারাপ এবং যেকোন কিছুতে মনোযোগ দেয়ার ক্ষমতা- এসবে বিঘ্ন ঘটে।

কাজের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত মানসিক চাপ কমানোর কিছু পরামর্শ দিয়েছেন ‘আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়াশনে’র গবেষকরা।

শরীর সুস্থ রাখুন : যেকোন ধরনের মানসিক চাপ নিতে হলে আগে শরীর সুস্থ রাখতে হবে। এসময় অ্যালকোহল, ধূমপান কিংবা ফাষ্ট ফুড খাবার খেয়ে শরীর আরো খারাপ করা ঠিক নয়। চাপ কমানোর জন্য ব্যয়াম খুবই উপকারী। এক্ষেত্রে যোগব্যায়াম খুব ভাল কাজ দেয়। সেটা না করতে পারলেও সমস্যা নেই। কারণ যেকোন ধরনের ব্যায়ামই মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। অবসরে আপনি যেসব জিনিস করতে পছন্দ করেন যেমন-বইপড়া, খেলাধূলা, গান শোনা এসব করার চেষ্টা করুন। ক্যাফেইন জাতীয় খাবার পরিত্যাগ করুন। তাহলে ভাল ঘুম হবে। কম্পিউটার, টেলিভিশন এগুলো রাতে যত কম দেখা যায় ততই ভাল।

নিজের ডেস্কে ব্যায়াম : একটানা ডেস্কে বসে কাজ করলে এমনিতেই শরীর খারাপ লাগে। একারণে কিছুক্ষন পর পর বিরতি দিন। একটু উঠে দাঁড়ান , পা টান করুন। কোমরও ঘুরিয়ে নিন।  খুব বেশি খারাপ লাগলে অফিসের করিডরে কিংবা বাইরে কয়েক মিনিটের জন্য হেঁটে আসুন।

স্বাস্থ্যকর খাবার খান : অফিস চলাকালীন  সময়টাতে সুষম খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে শরীর ফিট থাকবে।

ভারমুক্ত থাকতে শিখুন : মেডিটেশন যে কাউকে ভারমুক্ত থাকতে সাহায্য করে। কাজের ক্ষেত্রে খুব বেশি চাপ বোধ করলে মাঝেমধ্যে বড় করে নিশ্বাস নিন, ধীরে ধীরে ছাড়ুন। এটা আপনাকে অনেকটা আরাম দেবে।

বসের সঙ্গে কথা বলুন : আপনি কি ধরনের সমস্যা অনুভব করছেন, সেটা বসের সঙ্গে আলোচনা করুন। যে ভাল কাজ জানে তার জন্য বসদের আলাদা একটা অনুভূতি থাকে। তারাও চেষ্টা করে ভাল কর্মীকে ধরে রাখতে। সুতরাং বসকে জানালে তিনি হয়তো আপনার সমস্যা বুঝে আপনাকে চাপমুক্ত হতে সাহায্য করবে।

না বলতে শিখুন : যে কাজ জানে, তার উপরই সব কাজের দায়িত্ব দেয়া হয়। আপনি কতটা চাপ নিতে পারবেন , সেটা আগে বুঝুন। অতিরিক্ত কাজ চাপানো হলে আপনার শরীর ও মনের উপর কতটা প্রভাব ফেলবে সেটা বুঝে বস কিংবা সহকর্মীদের না বলতে শিখুন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করুন।

অন্যদের সাহায্য নিন : আপনার সমস্যার কথা কাছের বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের জানান। খোলাখুলি আলোচনা করুন। এতে আপনার মানসিক চাপ অনেকটা কমে আসবে। তারপরও সমস্যা বোধ করলে বিশেষজ্ঞর পরামর্শ নিন। সূত্র : হাডল,প্যারেড

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here