খুশবু- ১ ও খুশবু- ২ নামের রেস্তোরাঁ দু’টি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

0
92
খুশবু- ১ ও খুশবু- ২ নামের রেস্তোরাঁ দু’টি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

গুলশান-২ এর রেস্তোরাঁ ‘খুশবু’র রান্নাঘর থেকে পাওয়া গেল টেক্সটাইল মিলে ব্যবহৃত রঙের ডিব্বা। বিরিয়ানিকে আরও আকর্ষণীয় দেখাতে এই রঙ ব্যবহার করত রেস্তোরাঁটি। যা মানব শরীরের জন্য ক্ষতিকর বলে মনে করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে খুশবু- ১ ও খুশবু- ২ নামের রেস্তোরাঁ দু’টি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সোমবার র‍্যাব ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন যৌথভাবে এ অভিযান চালায়। কর্মকর্তারা বলেন, খুশবু রেস্তোরাঁর রান্নাঘর থেকে ভারতে তৈরি কৃষাণ ও কোনাক ব্রান্ডের ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রেডের রং পাওয়া যায়। রঙের ডিব্বার গায়েই লেখা লেখা রয়েছে এটা কেবল শিল্পকারখানায় ব্যবহারের জন্য। ওই রঙ দিয়ে বিরিয়ানিতে জাফরানী হলুদ আভা নিয়ে আসা হতো।
র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম সারোয়ার আলম বলেন, বিরিয়ানিতে কাপড়ের রং মেশানো ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির দায়ে গুলশান- ২ এর খুশবু বিরিয়ানি ও রেস্তোরাঁ নামের দোকানটির মালিক রিয়াজউদ্দীনকে এক বছর এবং ব্যবস্থাপক আব্দুস সালামকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। চার লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। তাঁদের দুটি রেস্তোরাঁই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
হাকিম সারোয়ার আলম বলেন, এ ছাড়া অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরির দায়ে কস্তুরি রেস্তোরাঁকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ছয় দিন আগেই ধানসিঁড়ি নামের একটি রেস্তোরাঁকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হলেও তাদের পরিবেশ উন্নত হয়নি। আগামী তিন দিনের মধ্যে রান্নার পরিবেশ উন্নত করবে বলে তাদের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নেওয়া হয়েছে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here