গুদাম ভর্তি ওষুধ থাকলেও দেয়া হয়নি : মেহেরপুর হাসপাতাল

0
46

গুদাম ভর্তি ওষুধ থাকলেও তা দেয়া হয়নি রোগীদের। এমনকি দেয়া হয়নি সামান্য স্যালাইনটুকুও। শুধু তাই নয়, অব্যবহৃত থাকায় নষ্ট হয়ে গেছে কোটি টাকার ডিজিটাল এক্স-রে, এ্যালটাসনোগ্রাফিসহ বেশকিছু যন্ত্রপাতি। এমনই অভিযোগে, মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে অভিযানে যায় দুদক। সব অনিয়মের সত্যতাও মেলে। তবে তা অস্বীকার করেছেন হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক।

গুদাম ভর্তি ওষুধ। তবু অভাবে ছিলেন রোগীরা। জুটত না সামান্য স্যালাইনটুকুও। এমন অভিযোগেই দুদকের আকস্মিক অভিযান মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের। সত্যতাও মিলেছে এসব অনিয়মের। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রহিমা হাসপাতালে ভর্তি ৬ দিন। প্রয়োজনের সব ওষুধই কিনতে হয়েছে বাইরের ফার্মেসি থেকে।

যাচ্ছেতাই অবস্থা ল্যাবের। কয়েক বছর ধরে কক্ষ বন্দী হয়ে নষ্ট হয়ে গেছে কোটি টাকার ডিজিটাল এক্স-রে, এ্যালটাসনোগ্রাফিসহ বেশ কিছু যন্ত্রপাতি। একটু জটিল রোগী হলেই পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে কুষ্টিয়া, রাজশাহী কিংবা ঢাকায়।

অভিযোগ আছে শিক্ষানবিসদের কাছ থেকে সার্টিফিকেটের নামে নেয়া হচ্ছে মোটা অংকের টাকা। তা স্বীকারও করেছেন অফিস সহকারী। অভিযানের পর দুদক কমিশনার বলেন, এসব অব্যবস্থাপনা আর অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। দুদকের অভিযানে অনিয়ম ধরা পড়ার পরও তা অস্বীকার করেছে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here