চাপাতির কোপে আহত কলেজছাত্র মাহিনের অপ্রত্যাশিত মৃত্যুর

0
155

রাজধানীর মিরপুরে ক্রিকেট খেলা নিয়ে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে বন্ধুদের চাপাতির কোপে আহত কলেজছাত্র মাহিন হাওলাদার (১৭) মারা গেছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ১২ দিন ধরে চিকিৎসাধীন মাহিন সোমবার রাতে মারা যায়।

এদিকে মাহিনের ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে ইমন নামে তার এক বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ইমনকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে জানিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে যুগান্তরকে পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির জানান, মাহিনের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা করেছিল তার পরিবার। কিশোরটি মারা যাওয়ায় ওই মামলাই এখন হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়েছে।

বুধবার আদালতে হাজির করে গ্রেফতার হওয়া আসামি ইমনের সাত দিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ। বাকি আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।

মুন্সীগঞ্জ টঙ্গিবাড়ি উপজেলার পুড়াগ্রাম এলাকার মানিক হাওলাদারের ছেলে মাহিন।

মিরপুর ৬ নম্বর সেকশনের এক নম্বর সড়কের সাত নম্বর বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে থাকত সে।

মাহিনের পরিবার সূত্র জানায়, উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র মাহিন গত ৩ অক্টোবর মিরপুর-৬ নম্বর সেকশনের ১৯ নম্বর সড়কের একটি মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলছিল। ওই সময় বন্ধুদের সঙ্গে ঝগড়া হয় তার।

এর জেরে ৫ অক্টোবর রাত ১০টার দিকে মিরপুর-৬ নম্বর এলাকার চলন্তিকা মোড়ে বন্ধু সজিব, শিমুল, ইমনসহ আরও কয়েকজন মাহিনকে রড ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে।

পরে মাহিনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় তার পরিবারের সদস্যরা। সেখানে ১২ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

মুন্সীগঞ্জ টঙ্গিবাড়ি উপজেলার পুড়াগ্রাম এলাকার মানিক হাওলাদারের ছেলে মাহিন। বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে মিরপুর ৬ নম্বর সেকশনের রোড-১, ৭ নম্বর বাড়িতে থাকত। স্থানীয় একটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক ১ম বর্ষের ছাত্র ছিল সে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here