ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন রাজধানীকে ধুলামুক্ত করবে

0
38

রাজধানীবাসীকে ধুলাদুষণমুক্ত নগরী উপহার দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।

ঢাকা দক্ষিণের ৫০ কিলোমিটার প্রধান সড়ক পানি দিয়ে প্রতিদিন দুইবার ধুয়ে পরিষ্কার ও ধুলামুক্ত করবে সিটি করপোরেশন। এ জন্য নগরীতে নামানো হয়েছে ৯টি গাড়ি। দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন আজ বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সামনে এই কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে বলেন, নগরীকে বাসযোগ্য করতে সিটি করপোরেশন বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। ‘রাস্তায় বের হলেই ধুলায় নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হয় রাজধানীবাসীর। এমন কোনো সড়ক নেই যেখানে ধুলার অত্যাচার নেই। ধুলার কারণে হাঁপানি, ফুসফুসসহ এলার্জিজনিত নানা অসুখে নিত্য ভোগেন ঢাকার মানুষ, বিশেষ করে বৃদ্ধ ও শিশুরা। নগরীকে ধুলাদুষণমুক্ত করে আমরা এ অবস্থা থেকে নগরবাসীকে পরিত্রাণ দিতে চাই।’

তিনি বলেন, প্রতিদিন দুই শিফটে নগরীর প্রধান সড়কে পানি ছিটানো হবে। করপোরেশনের গাড়িগুলো প্রথমবার অফিস সময়ের আগে সকাল ৬টা থেকে ৮টা পর্যন্ত এবং দ্বিতীয়বার বেলা ১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত পানি ছিটিয়ে রাজধানীর সড়কগুলো ধুয়ে দেবে। পাশাপাশি উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের ফলে সৃষ্ট ধুলাবালি থেকে নগরীকে মুক্ত রাখতে ওইসব এলাকাগুলোতেও পানি ছিটানো হবে।

আগামী এপ্রিল-মে পর্যন্ত পুরো শুষ্ক মৌসুমে এই পানি ছিটানো কার্যক্রম চলবে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, প্রতিদিন ৯টি গাড়ি নগরীর বিভিন্ন সড়কে পানি ছিটাবে। এ ক্ষেত্রে অলিগলিগুলো আপাতত এই কার্যক্রমের আওতায় আসবে না।

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, প্রতিটি গাড়ি ৭ হাজার লিটার পানি ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন। ১৯৯৬ সালে চীন থেকে আমদানি করা ৪টি পুরাতন গাড়ির সঙ্গে গত বছর ভারত থেকে আনা নতুন ৫টি গাড়ি এ কাজে যুক্ত হচ্ছে। নগরীকে ৫টি অঞ্চলে ভাগ করে রাস্তায় পানি ছিটানো হবে।

অঞ্চল-১ এর আওতায় বাংলামটর থেকে শাহবাগ হয়ে শিক্ষাভবন, জিরো পয়েন্ট জিপিও হয়ে বঙ্গভবন। এরপর ধানমন্ডি ২৭ থেকে ল্যাবএইড হয়ে নীলক্ষেত পর্যন্ত। মগবাজার চৌরাস্তা ফ্লাইওভার থেকে কাকরাইল হয়ে হেয়ার রোড হয়ে মিন্টু রোড মোড় পর্যন্ত এবং শাহবাগ থেকে এ্যালিফ্যান্ট রোড হয়ে সাইন্সল্যাব মোড় পর্যন্ত।

অঞ্চল-২-এর আওতায় মধুমিতা সিনেমা হল থেকে নটরডেম কলেজ হয়ে আইডিয়াল স্কুল হয়ে শাহজাহানপুর মোড় পর্যন্ত। খিলগাঁও ফ্লাইওভার থেকে ফকিরাপুল, দৈনিক বাংলা মোড়, বঙ্গভবন হয়ে শাপলা চত্বর।

অঞ্চল-৩-এর আওতায় নীলক্ষেত ইডেন কলেজের রাস্তা থেকে আজিমপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত উভয় পাশ, আজিমপুর চৌরাস্তা থেকে আজিমপুর কবরস্থান রোড, আজিমপুর চৌরাস্তা হয়ে এতিমখানা থেকে অঞ্চল-৩ এর কার্যালয় পর্যন্ত। পলাশি চৌরাস্তা থেকে লালবাগ ছাতা মসজিদ হয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দিরের রাস্তা থেকে বকশিবাজার আলিয়া মাদ্রাসা হয়ে বদরুন্নেসা কলেজ পর্যন্ত।

অঞ্চল-৪ এর আওতায় গুলিস্তান থেকে নর্থ সাউথ রোড হয়ে সদরঘাট, ইংলিশ রোড থেকে বাবুবাজার ব্রিজ হয়ে সাদেক হোসেন খোকা মাঠ।

অঞ্চল-৫-এর আওতায় বঙ্গভবন থেকে ইত্তেফাক এবং র‌্যাব-৩-এর কার্যালয় হয়ে জয়কালী মন্দির, মানিকনগর থেকে গোলাপবাগ র‌্যাব-১০-এর কার্যালয় এবং যান্ত্রিক-২ হয়ে সায়দাবাদ ব্রিজ পর্যন্ত। যাত্রাবাড়ী থেকে রাজধানী মার্কেট রাস্তার উভয় পাশ। শহীদ ফারুক সড়ক, জুরাইন রেলগেট থেকে দয়াগঞ্জ মোড় এবং ধোলাইখাল হয়ে পোস্তগোলা পর্যন্ত।

তথ্যসূত্র: বাসস

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here