দেশের কল্যাণে যা কিছু, তা ইতিবাচক লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরা উচিত।

0
109
দেশের কল্যাণে যা কিছু, তা ইতিবাচক লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরা উচিত।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে সবকিছু নেতিবাচক লেখার ধারণা থেকে বের হয়ে আসতে মিডিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, দেশের কল্যাণে যা কিছু, তা ইতিবাচক লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরা উচিত।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের একটা ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে যে সরকারের বিরুদ্ধে না লিখলে কোনো মিডিয়া টিকে থাকতে পারে না। আমাদের এই অসুস্থ মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এবং কোনো রকম ভীতি ও পক্ষপাতিত্ব ছাড়াই সত্য তুলে ধরতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা দেশের জন্য কোনো কিছু করলে তা যথাযথভাবে প্রকাশ করা উচিত। এটা আমার বা আমার দলের স্বার্থে নয় বরং দেশের স্বার্থে।’

প্রধানমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) দ্বিবার্ষিক কাউন্সিলে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেন। তিনি বলেন, ‘প্রতি ১৫ দিন পরপর আমরা বিভিন্ন দৈনিক ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় পরিবেশিত সংবাদ সংগ্রহ করছি। এতে দেখা যায়, আমাদের বিরুদ্ধে রয়েছে অধিকাংশ নেতিবাচক সংবাদ এবং ইতিবাচক সংবাদ খুবই দুর্লভ।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে মিডিয়ার সব সময় ভূমিকা পালন করা প্রয়োজন। দেশকে এগিয়ে নিতে জনকল্যাণ ও জনগণের আস্থা অর্জনে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে জনগণকে জানাতে হবে। তিনি বলেন, বিশ্বের প্রত্যেক দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে স্বাধীনতা ভোগের নীতিমালা রয়েছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে ৩৭ বছরের দায়িত্ব পালনকালে মিডিয়ার কাছ থেকে আমি তেমন সহযোগিতা পাইনি এবং কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া আমাকে প্রতিকূল অবস্থার মাঝে এগিয়ে যেতে হয়েছে। কিন্তু এতে আমার মাথাব্যথা ছিল না। কারণ আমি জানি, আমি কী করছি। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, সত্য ও সততার পথে থাকলে অবশ্যই ভালো ফল পাওয়া যায়।’

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here