নির্বাচনে অংশ নেয়া, না নেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি।

0
38
নির্বাচনে অংশ নেয়া, না নেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন দেখে সরকার পরিবর্তন (জাতীয় সংসদ নির্বাচন) নির্বাচনে অংশ নেয়া, না নেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি।

মঙ্গলবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

এর আগে বিএনপির তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। প্রতিনিধিদলে অন্যদের মধ্যে ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এবং ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের গয়েশ্বর আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন একটাই। আস্থা রাখলেও আসতে হয় না রাখলেও আসতে হয়। তবে আমরা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পর্যন্ত অপেক্ষা করছি। গাজীপুর নির্বাচন দেখে তারপর আমরা সিদ্ধান্ত নেব।

তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনকে বলেছি রাজনৈতিক দলসহ সবাইকে আস্থায় রাখা আপনাদের দায়িত্ব। মানুষ যদি আস্থা না রাখেন এবং রাজনৈতিক দল যদি আস্থা হারায় তাহলে আপনারা আপনাদের দায়িত্বপালন করতে পারবেন না।

বিএনপি নেতা আরও বলেন, খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অনিয়মের চিত্র তুলে ধরে নির্বাচন কমিশনকে আমরা লিখিত অভিযোগ দিয়েছি এবং বলেছি এসব অভিযোগ মাথায় রাখতে, যাতে করে আগামী গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে গয়েশ্বর বলেন, যে নির্বাচনে সরকার পরিবর্তন হয় না সে নির্বাচনেও যদি মানুষ সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে না পারে- তাহলে যে নির্বাচনে সরকার পরিবর্তন হয় সেই নির্বাচনের ব্যাপারে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণার সুযোগ দেয়ার বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে বলেছি, এ ধরনের সুযোগ থাকলে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড থাকবে না।

নজরুল ইসলাম বলেন, জবাবে সিইসি আমাদের বলেছেন, ক্ষমতায় গেলে এ সুযোগ আপনারাও পাবেন। কিন্তু আমরা বলেছি, আমরা এই সুযোগ চাই না। আমরা সবার জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড চাই।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here