নেত্রকোনা উপজেলায় মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা

0
131

নেত্রকোনা সদর উপজেলার মৌগাতী ইউনিয়নের নাটেরকোনা গ্রামে বাবা-মা ও নিজের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সোমবার এক মাদ্রাসাছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্যের নির্যাতনের শিকার হয়ে সে অভিমানে আত্মহত্যা করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নাটেরকোনা গ্রামের স্থানীয় মৌগাতী ইউপি সদস্য ডেন্ডু এলাকার জয়নালের কাছ থেকে নির্বাচন করার সময় এক লাখ টাকা ধার নেন। ওই টাকা জয়নাল ফেরত চাইতে গেলে তাকে এবং তার পরিবারের ওপর প্রায়ই নির্যাতন চালাতেন ডেন্ডু। রোববার ডেন্ডু মেম্বারের জয়নালকে টাকা দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই দিন জয়নালের বাড়িতে ডেন্ডু গিয়ে জয়নালকে লাঠি দিয়ে আঘাত করতে গেলে ওই লাঠির আঘাত জয়নালের মেয়ে মাদ্রাসাছাত্রী হাফসানার বুকে লাগে। এতে হাফসা ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়ে। মনের ক্ষোভে সোমবার সকালে সে বিষপান করে। তাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়া হলে সে মারা যায়।

ছাত্রীর মা মঞ্জুরা জানান, রোববার টাকা দেয়ার কথা ছিল, টাকা না দিয়ে উল্টো আমাদের ওপর নির্যাতন চালায় ডেন্ডু মেম্বার। এ নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমার মেয়ে মারা যায়। নিহতের বাবা জয়নাল জানান, আমাকে মেরেছে, আমার স্ত্রী সন্তানকে মেরেছে। আর এ নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি আমীর তৈমুর ইলী বলেন, আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here