পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৭

0
87

পাবনা-ঢাকা মহাসড়কের সাঁথিয়া উপজেলার বহলবাড়িয়ায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জন নিহত এবং অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আজ দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহত লোকজনের মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন পাবনা সদর উপজেলার বাগচীপাড়া গ্রামের আয়েত আলী (৫৫), আতাইকুলা থানার বৃহস্পতিপুর গ্রামের আবুল কালাম (৩৭) এবং দুর্ঘটনাকবলিত সুমী ট্রাভেলস নামের বাসের চালক রিপন মিয়া (৫০) ও সহকারী কাওসার আহমেদ (৩২)।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তি সূত্রে জানা গেছে, আজ সুমী ট্রাভেলস (চট্ট-মেট্রো ব-১১০২০৩) নামের বাসটি কুষ্টিয়া থেকে সিরাজগঞ্জে ও বেড়ার কাজীরহাট থেকে আলী ট্রাভেলস (ঢাকা-মেট্রো জ ১১০৯২২) নামের আরেকটি বাস যাত্রী নিয়ে রাজশাহী যাচ্ছিল। ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক ধরে দুপুর ১২টার দিকে বাস দুটি সাঁথিয়া উপজেলার বহলবাড়ি নামক স্থানে পৌঁছালে তাদের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজন এবং পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও দুজন যাত্রী মারা যান। এ ছাড়া উভয় বাসের অন্তত ১৫ জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়। তাদের সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ বিকেল চারটার দিকে মাধপুর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন সাতজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা জেনেছি বাস দুটি বিপজ্জনক গতিতে চলছিল। এতে চালকেরা নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পারায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহতদের লাশ পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। চারজনের পরিচয় পাওয়া গেলেও বাকি তিনজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।’

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here