পুকুরে ডুবে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

0
127
পুকুরে ডুবে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) পুকুরে ডুবে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিকেলে গোসল করতে নেমে তিনি নিখোঁজ হন।

ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. সামছুদ্দিন (১৯)। তিনি পরিসংখ্যান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সামছুদ্দিনের গ্রামের বাড়ি ফেনী জেলার সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের সুন্দরপুরে। তবে তাঁর পরিবার ঢাকার মিরপুর এলাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ–উপাচার্য মো. আবুল হোসেন বলেন, সামছুদ্দিন বিকেলে বন্ধুদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুকুরে গোসল করতে নামেন। সম্ভবত তিনি সাঁতার জানতেন না। একপর্যায়ে বন্ধুরা সামছুদ্দিনকে না দেখে বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানান। এরপর পুকুরে জাল ফেলার পাশাপাশি মাইজদী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দেওয়া হয়। একই সময় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের জন্য চাঁদপুর জেলায় খবর দেওয়া হয়।

সহ–উপাচার্য আবুল হোসেন আরও বলেন, ডুবুরি দল এসে পৌঁছানোর আগেই স্থানীয় জেলে এবং ফায়ার সার্ভিসের স্থানীয় কর্মীদের যৌথ প্রচেষ্টায় সন্ধ্যা ছয়টার দিকে অচেতন অবস্থায় সামছুদ্দিনকে উদ্ধার করা হয়। তাঁকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আজিম বলেন, সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে সামছুদ্দিনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। এখন পরিবারের সদস্যরা যদি চান তাহলে লাশের ময়নাতদন্ত হবে। অন্যথায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ হস্তান্তর করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, সামছুদ্দিন সোমবার দুপুরে বন্ধুদের নিয়ে ক্যাম্পাসে জন্মদিন উদ্‌যাপন করেন। এরপর বিকেলে আবার বন্ধুদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুকুরে গোসল করতে পানিতে নেমে নিখোঁজ হন।

এ প্রসঙ্গে সহ–উপাচার্য আবুল হোসেন বলেন, সামছুদ্দিনের জন্মদিন ছিল কি না, তাঁরা নিশ্চিত নন। ভর্তির তথ্য অনুযায়ী তাঁর জন্ম তারিখ ২৫ মে। প্রথম বর্ষের ছাত্র হওয়ায় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে সিট পাননি। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে থাকতেন। ক্যাম্পাসে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের বিষয়ে তাঁরা কিছু জানেন না।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, সামছুদ্দিন নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র ক্যাম্পাসে পুকুরের পানিতে ডুবে মারা গেছেন। তাঁর লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ঢাকায় বসবাসকারী পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে। তাঁরা এসে পৌঁছালে তাঁদের মতামতের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here