বগুড়ার পাকারমাথা এলাকায় এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

0
72
বগুড়ার পাকারমাথা এলাকায় এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

বগুড়ার পাকারমাথা এলাকায় রেজাউল করিম ওরফে ডিপজল (৩৮) নামের এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে দুর্বৃত্তদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে রেজাউল নিহত হয়েছেন বলে পুলিশের দাবি। বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের দাবি, রেজাউল করিম শহরের তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদকের কারবারি। তাঁর বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র, বিশেষ ক্ষমতা আইন ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ১০টি মামলা রয়েছে। রেজাউল মালগ্রাম উত্তরপাড়ার বাসিন্দা। তাঁর পিতার নাম আবদুল মান্নান।

সনাতন চক্রবর্তী বলেন, বৃহস্পতিবার রাত দুইটার দিকে পাকারমাথা এলাকায় দুই দল দুর্বৃত্তের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে সদর থানা-পুলিশের কয়েকটি টহল দল সেখানে উপস্থিত হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাঁকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান এবং তিন রাউন্ড গুলি এবং ৪০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে। পরে পকেটে থাকা জাতীয় পরিচয়পত্র দেখে পুলিশ তাঁর নাম-পরিচয় নিশ্চিত হয়।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম বদিউজ্জামান বলেন, রেজাউল করিম পুলিশের নথিতে তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তাঁর বিরুদ্ধে সদর থানায় মাদক, অস্ত্র, বিশেষ ক্ষমতা আইনে মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ২০১৭ সালের ৮ মার্চ বগুড়া শহরের রেলস্টেশন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনার সময় তাঁকে আটক করতে গেলে ৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এক সদস্যকে কর্তব্যরত অবস্থায় ছুরিকাঘাত করেন তিনি।

বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবদুল আজিজ বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ এখনো যোগাযোগ করেননি।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here