বরিশালে অপহৃত ছাত্র সৈকতের প্রাণ বাঁচাতে মুক্তিপণ দাবি

0
82

নবম শ্রেণীর অপহৃত মেধাবী স্কুল ছাত্র সৈকতের প্রাণ বাঁচাতে শুক্রবার রাতে তার মায়ের কাছে মোবাইল ফোনে মুক্তিপণ দাবি করেছে অপহরণকারীরা। অপহরণের পর থানায় লিখিত অভিযোগ ও পরবর্তীতে মুক্তিপণ দাবির বিষয়টি থানার ওসিকে জানানো স্বত্বেও পুলিশ রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছেন বলে শনিবার দুপুরে অভিযোগ করেন অপহৃত স্কুল ছাত্রের মা রুমা বেগম।

অপহৃত স্কুল ছাত্র আসাদুর রহমান সৈকত (১৪) জেলার উজিরপুর উপজেলার বামরাইল এবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র ও গৌরনদী উপজেলার শাহজিরা গ্রামের আনসার কমান্ডার আজিজুর রহমান চুন্নুর পুত্র।

অপহৃতের মা রুমা বেগম জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে অজ্ঞাতনামা অপহরণকারীরা সৈকতকে প্রাণে বাঁচাতে চাইলে মোটা অংকের টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। তাদের দাবীকৃত মুক্তিপণের টাকা না দিলে অপহৃত সৈকতকে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়া হয়। তাৎক্ষণিক তিনি থানায় উপস্থিত হয়ে ওসিকে অবহিত করার পর তিনি (ওসি) মুক্তিপণ দাবি করা মোবাইল ফোনে কল দিয়ে নিজের পরিচয় দিয়ে অপহরণকারীদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদর্শন করেন। সেই থেকে হুমকি দেয়া মোবাইল নাম্বারটি বন্ধ রয়েছে।

অপহৃতর বাবা ঢাকা-বরিশাল নৌ-রুটের একটি বেসরকারি যাত্রীবাহী লঞ্চের আনসার কমান্ডার আজিজুর রহমান চুন্নু জানান, গত ১১ অক্টোবর তার ছোট পুত্র সৈকত স্কুলে যাওয়ার পথে অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতকারীরা তাকে অপহরণ করে। এ ঘটনায় গত ১৫ অক্টোবর গৌরনদী মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। তিনি আরও জানান, দীর্ঘদিনেও থানা পুলিশ তার পুত্রের কোন সন্ধান বের করতে পারেননি। মেধাবী ছাত্র সৈকতকে খুঁজে বের করার জন্য তারা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here