বস্তা থেকে ২৭ জোড়া কাটা হাত উদ্ধার

0
106
বস্তা থেকে ২৭ জোড়া কাটা হাত উদ্ধার

চুরির শাস্তি নাকি নেপথ্যে পাচার- কোনটা? বস্তা থেকে ২৭ জোড়া কাটা হাত উদ্ধারের পর এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে সাইবেরিয়া পুলিশের মাথায়। খতিয়ে দেখা হচ্ছে অন্যান্য সম্ভাব্য কারণও। সম্প্রতি চীন সীমান্তের কাছে সাইবেরিয়ার খাবরোবক্স শহর থেকে একটু অদূরে এক নদীর পাড়ে মানুষের কাটা হাত দেখতে পান স্থানীয়রা।সেই সূত্র ধরে একটি ব্যাগের মধ্যে থেকে উদ্ধার হয় আরও কাটা হাত। গণনার পর জানা যায় সেই ব্যাগের মধ্যে ছিল ২৭ জোড়া মানুষের হাত। মানে ৫৪টি হাত। সবকটি হাত কবজি থেকে কাটা।

সাইবেরিয়ান টাইমস এর খবর অনুযায়ী, বরফ ঢাকা আমুর নদীর পাড়ে একটি মানুষের কাটা হাত পড়ে থাকতে দেখেন এক স্থানীয় বাসিন্দা। এরপরই মানুষের কাটা হাতে ভর্তি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে।পুলিশ এসে হাতগুলি বরফের ওপর রেখে ছবি তোলে। জিজ্ঞাসাবাদ করে স্থানীয় বাসিন্দাদের।

জানা গিয়েছে, হাত গুলি কাদের, কোথা থেকে সেগুলি এসেছে, কারা ব্যাগ ফেলে দিয়ে গিয়েছে-সব কিছুই তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

আরো জানা গেছে, একটি হাতের মধ্যে ফিঙ্গার প্রিন্ট পাওয়া গিয়েছে। বাকি হাতেরও পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

এদিকে কি কারণে হাত কাটা হতে পারে তার একাধিক তত্ত্ব নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। কেউ জানিয়েছে, চুরির শাস্তি দিতে কুড়ুল দিয়ে হাত কাটা হতে পারে। অন্য কারোর মতে, মৃতদেহ থেকে হাতগুলি কাটা হয়েছে। স্থানীয় কোনও হাসপাতালেরই কাজ হবে এটা।

আবার পাচারের তত্ত্বও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ফিঙ্গার প্রিন্ট যাতে খুঁজে না পাওয়া যায় তাই মৃতদেহ থেকে হাত কেটে ব্যাগে পুড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় মিডিয়াতে বলা হয়েছে, ব্যাগের পাশে মেডিক্যাল ব্যান্ডেজ ও কিছু প্লাস্টিক জুতো পাওয়া গিয়েছে, যেগুলি হাসপাতালে পড়া হয়। পুলিশকেও ভাবাচ্ছে এই কারণগুলি।

তবে এই ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেননি কোনও কর্মকর্তা।
সূত্র: কলকাতা টোয়েন্টিফোর

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here