মিথ্যে অভিযোগের বরাতে বোন ও ভাবীকে গ্রেপ্তার করলেন কাফরুল থানার এস.আই কালাম।

0
122
মিথ্যে অভিযোগের বরাতে বোন ও ভাবীকে গ্রেপ্তার করলেন কাফরুল থানার এস.আই কালাম।

বিগত প্রায় চার মাস পূর্বে ইব্রাহিমপুর থানাধীন এক রাজমিস্ত্রীর মেয়ে প্রেম করে পালিয়ে যায় মহসিন নামক একটি ছেলের সাথে। জানাযায় তারা বিয়ে করেছে এবং মেয়ে অন্তসত্বা। এদিকে মেয়ের বাবা মেয়েকে ফেরত আনার জন্য বিভিন্নভাবে ছলচাতুরি করে ছেলেপক্ষের বোন-ভাভীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে কিন্তু তারা উভয়ের কোন সন্ধান দিতে র্ব্যথ হয়। বিগত দিন খোজার পর তারা জানতে পারে তাদের মেয়ে অন্তসত্বা। কিন্তু মেয়ের পরিবার মেনে না নেয়ায় মেয়ের বাবা নিজের মেয়ে পালিয়ে যাওয়ার কথা ধামাচাপা দিয়ে মেয়েকে অপহরণ করে টাকা দাবী করছে বলে মোটা অংকের টাকা দিয়ে পুলিশের কাছে মিথ্যা অভিযোগ করে। মিথ্যে অভিযোগরে বরাতে এস.আই কালাম কোন প্রকার সত্যতা যাচাই ছাড়াই তিনি তার প্রভাব প্রয়োগ করে মহসিনের বোন জোৎস্না ও ভাবীর শ্যামলীর উপর। এস.আই কালাম ১ লাখ দাবী করে তাদের কাছ থেকে। দিতে র্ব্যথ হওয়ায় তাদেরকে শিশু বাচ্চাদের সামনেই টেনে হেঁচড়ে গাড়ীতে তুললে শিশুরা কান্নাকাটি করতে থাকলে তিনি বাচ্চাদের লাথি মেরে ফেলে দিয়ে বাচ্চার মা’দেরকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসেন বলে এলাকাবাসী সাংবাদিকদের জানান। ছোট ছোট অবুঝ শিশু বাচ্চারা মাকে খুঁজছে আর কাঁদছে! এই ব্যপারে সাংবাদিক এস.আই কালাম সাহেবকে ফোন করে তথ্য জানতে চাইলে তিনি বলেন- মেয়েকে আর ছেলেকে আমার হাতে তুলে দিলেই আমি ছেড়ে দেব। নয়তো কোন রাজনৈতিক নেতা হোক আর সাংবাদিক হোক কেউ কিছুই করতে পারবে না। আমি মামলা দিব, চালান করে দিব প্রয়োজনে এই দুই জনকে রিমান্ডে দিব।এস.আই কালাম অনেক ক্ষমতাবান বলে মনে হয়। তাই তিনি রাজনৈতিক নেতা হোক আর সাংবাদিক হোক গনায় ধরেন না। কোন প্রকার মামলা কিংবা ওয়ারেন্ট ছাড়াই গ্রেপ্তার করতে পারেন এই এস.আই. কালাম। ইতিপূর্বে কাফরুল থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজীর সংবাদ পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে। এমনকি মাদক ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পতিতালয় থেকে সাপ্তাহিক ও মাসিক চাঁদা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে এস আই কালামের বিরুদ্ধে। অপকর্মের শীর্ষে পৌছানো চাঁদাবাজ, পুলিশের পোষাকধারী নির্যাতনকারী এই এস.আই কালামের ক্ষমতার উৎস অনুসন্ধান করে বিষয়টি ন্যায় বিচারের আওতায় এনে এস.আই কালামের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য দেশরত্ন মানষকন্যা জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনায় এলাকাবাসীর জোর আবদার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here