যমজ কন্যাশিশু রাবেয়া-রোকাইয়া ঢামেক হাসপাতালে

0
118

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের মাথা জোড়া লাগানো যমজ কন্যাশিশু রাবেয়া-রোকাইয়াকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার সকাল ৯টার দিকে তাকে বার্ন ইউনিটে ৬১৩ নম্বর কেবিনে ভর্তি করা হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন জনকণ্ঠকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই শিশু দুটির চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি জানান, আগামীকাল (মঙ্গলবার) সকাল যমজ কন্যা শিশু’র পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। এরপর মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে তার চিকিৎসার কার্যক্রম শুরু হবে।

জানা গেছে, পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের আটলংকা গ্রামের স্কুলশিক্ষক রফিকুল ইসলাম-তাসলিমা দম্পতির তিন সন্তা। প্রথম সন্তানও মেয়ে। এরপর মাথা জোড়া লাগানো এই দুই মেয়ের জন্ম হয়েছে। গত বছর পাবনা শহরের একটি ক্লিনিকে ভর্তি হলে সেখানে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাথা জোড়া যমজ শিশু কন্যা জন্ম হয়।

মা তাসলিমা খাতুন জানান, মেয়ে দুটি বড় হচ্ছে। তাদের আলাদা করা নিয়ে চিন্তায় আছেন তিনি। তাদের স্বাভাবিক জীবন নিয়ে তাঁর যতো দুশ্চিন্তা। তিনি জানান, স্থানীয় সাংসদের মাধ্যমে শিশুটির অবস্থা প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছানো হয়। তিনি শিশুটির চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।

এর আগে শিশু দুটি হাসপাতালের শিশু বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে। ডাঃ সামন্ত লাল সেন জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাদের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। কাল (মঙ্গলবার) থেকে তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। এরপর মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে তাদের নিয়ে বসাতে হবে। তারপর কি অবস্থা বোঝা যাবে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here