রাজধানীতে ছুরিকাঘাত করে চোরেরা দুটি মোটরসাইকেল চুরি করে

0
77
রাজধানীতে ছুরিকাঘাত করে চোরেরা দুটি মোটরসাইকেল চুরি করে

রাজধানীতে মিরপুর ও খিলগাঁওয়ে পৃথক দুটি চুরির ঘটনায় তিন নিরাপত্তাকর্মী আহত হয়েছেন। নিরাপত্তাকর্মীদের মারধর ও ছুরিকাঘাত করে চোরেরা দুটি মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে গেছে।

শুক্রবার ভোররাতে ঘটনাগুলো ঘটে।

আহত ব্যক্তিরা হলেন মিরপুরের অপু কুমার সরকার (৩০) ও আনিসুর রহমান (৩০) এবং খিলগাঁওয়ে মো. মনির হোসেন (৩২)। তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মার্টিনেট সিকিউরিটি সার্ভিসেস প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মনিরুল ইসলাম জানান, মিরপুর ২ নম্বর সেকশনের নবা রহমান হাউজিং সোসাইটির হাউস ১/১–এর নিরাপত্তাকর্মী অপু কুমার সরকার রাতে দায়িত্বপালন করছিলেন। রাত প্রায় তিনটার দিকে তিন চোর তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করতে গেলে অপু বাধা দেন। সে সময় এক ছিনতাইকারী তাঁকে পেছন থেকে এসে কুপিয়ে আহত করে গ্যারেজে থাকা মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় অপুর চিৎকারে ঘুমে থাকা আরেক নিরাপত্তাকর্মী উঠে তাদের ধরার চেষ্টা করলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায় চোরোরা। পরে দুই নিরাপত্তাকর্মীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়।

এর মধ্যে আনিসুরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আর অপুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপুর বাবার নাম গোপাল চন্দ্র সরকার। তাঁর বাড়ি নওগাঁর মহাদেবপুরে। তার ডান কাঁধ, হাত ও মুখ জখম হয়েছে।

এ ছাড়া ৬৬ উত্তর গোড়ানে ভোর ৫টার দিকে তিন চোর একই কায়দায় তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করতে গেছে মনির বাধা দেয়। এ সময় চোরেরা তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। ওই বাড়িতে থাকেন সিআইডির এএসপি আফসার উদ্দিন। পরে তিনি তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার পেটে, ডান হাতের কনুই ও কবজিতে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

লালবাগে একজন ছুরিকাঘাতে আহত: লালবাগে বাপ্পা (২৫) নামের এক ভাঙারি দোকানের কর্মচারী ছুরির আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ সকাল ৯টার দিকে বিজিবি ১ নম্বর গেটের পাশে একটি স্কুলের সামনের রাস্তায় বাপ্পাকে তাঁর পূর্বপরিচিতি ওমর ফারুক (২৪) ছুরিকাঘাত করেন। ফারুক পালিয়ে যাওয়ার সময় র‍্যাব-২–এর টহল দল তাঁকে আটক করে।

আহত বাপ্পাকে নবাবপুর পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক আনোয়ার হোসেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। ছুরি বাপ্পার পেটে ঢুকে যায়। হাজারীবাগের ৭৪ ভাগলপুর লেনে আবদুর রশিদের বাড়িতে ভাড়া থাকেন বাপ্পা। তাঁর বাবার নাম আবদুস ছালাম।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here