রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবিরে ত্রাণ দিবে কংগ্রেস : অধীর চৌধুরি

0
37

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া প্রায় তিন লক্ষ রোহিঙ্গা শরণার্থীর জন্য ত্রাণের খুবই প্রয়োজন। মঘর বার পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি অধীর চৌধুরি এক সমাবেশে জানিয়েছেন, কংগ্রেস সংসদীয় দলের পক্ষ থেকে তাঁরা বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবিরে ত্রাণ নিয়ে যেতে চান। তবে তিনি জানিয়েছেন, ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে তাঁরা ত্রাণ পৌঁছে দিতে চান। গত সোমবার কলকাতায় বিভিন্ন মুসলিম সংগঠনের ডাকা সমাবেশে যোগ দিয়ে অধীর চৌধুরি রোহিঙ্গাদের গণহত্যার নিন্দা করেছিলেন। একই সঙ্গে ভারত সরকারের রোহিঙ্গা বিতাড়নের সমালোচনায়ও সরব হয়েছিলেন। তবে মঙ্গ কংগ্রেসের উদ্যোগে দক্ষিণ কলকাতায় মায়ানমার দূতাবাসের সামনে প্রতিবাদ সভা করেছে।

এই সভায়  রোহিঙ্গা মুসলিমদের দুর্দশার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। সমাবেশ থেকে রোহিঙ্গাদের উপরে অত্যাচার বন্ধ করার দাবি তুলেছেন কংগ্রেস নেতারা। অধীরবাবু বলেন, মায়ানমারে অত্যাচারিত হয়ে বাংলাদেশ হয়ে বা সরাসরি যে সব রোহিঙ্গা এ দেশে ঢুকছেন, তাঁদের ‘পুশব্যাক’ করে ফেরত পাঠানোর নীতি নিয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। বিজেপি-র তরফে যুক্তি দেওয়া হচ্ছে, রোহিঙ্গাদের মধ্যে থেকে অনেকে জঙ্গি হচ্ছে। অধীরবাবুর পাল্টা প্রশ্ন, কাশ্মীর বা উত্তর-পূর্বের রাজ্যেও তো জঙ্গি সমস্যা আছে। তাই বলে সকলকেই কি ‘ফেরত’ পাঠানো হবে? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কাছে প্রদেশ সভাপতি এ রাজ্যে থাকা রোহিঙ্গাদের উদ্বাস্তু কার্ড দেবার দাবি জানিয়েছেন।  সভার পরে দূতাবাসে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি দাবিপত্র তুলে দেওয়া হয়েছে। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গে সংখ্যালঘুদের অন্যতম বৃহত্তম সংগঠন জমিয়তে উলেমা হিন্দের প্রধান ও রাজ্য সরকারের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য তারাও ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোর ব্যবস্থা করছেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here