রোহিঙ্গাদের সহায়তা দিতে চায় বিশ্বব্যাংক

0
158

রোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা মোকাবেলায় বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে চায় বিশ্বব্যাংক। বাংলাদেশ চাইলে সহায়তা দিতে প্রস্তুত সংস্থাটি।

বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের জন্য কোনো প্রকল্প নিতে চাইলে বাংলাদেশকে বিশ্বব্যাংক ৪০ কোটি মার্কিন ডলার বা ৩ হাজার ২০০ কোটি টাকার সহায়তা দিতে প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির আবাসিক প্রধান চিমিয়াও ফান।

বুধবার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট’ প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিশ্বব্যাংক রোহিঙ্গা সমস্যা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জানিয়ে চিমিয়াও ফান বলেন,‘সহিংসতার শিকার হয়ে রোহিঙ্গাদের নিজ দেশ ছেড়ে শরণার্থী হতে বাধ্য করা হয়েছে। তাদের জন্য মানবিক এবং জীবনযাত্রার উন্নয়নের জন্য জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে বিশ্বব্যাংক। বাংলাদেশ সরকার চাইলে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সংকটে সহায়তা করতে আমরা প্রস্তুত আছি।’

তিনি বলেন,‘শরণার্থীদের সহায়তায় বিশ্বব্যাংকের সহযোগী সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনে (আইডিএ)‘রিফিউজি ফান্ড’ নামে নতুন একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে। এর পরিমাণ ২০০ কোটি মার্কিন ডলার।

বিশ্বব্যাংকের আবাসিক প্রধান বলেন, যেকোনো দেশ প্রয়োজনে তিন বছরে সর্বোচ্চ ৪০ কোটি ডলার ঋণ পেতে পারে। সেক্ষেত্রে ওই দেশে শরণার্থীর সংখ্যা ২৫ হাজারের বেশি হতে হবে। বাংলাদেশে এখন রোহিঙ্গা শরণার্থীর সংখ্যা ২৫ হাজারের অনেক বেশি। ফলে বাংলাদেশ এই তহবিল পাওয়ার যোগ্য।

এই সহায়তা ঋণ নাকি অনুদান হিসেবে পাওয়া যাবে, সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন,‘এটা নির্ভর করবে শরণার্থীদের সহায়তা চেয়ে বাংলাদেশ কোন ধরনের প্রস্তাবনা দেয়, তার ওপর। প্রস্তাবনা দেখে মোট সহায়তার অর্থেক অনুদান ও অর্ধেক ঋণ হতে পারে, আবার পুরোটাই অনুদান হতে পারে।’

আগামী অক্টোবর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে অনুষ্ঠেয় বিশ্বব্যাংকের আসন্ন বার্ষিক সভায় রোহিঙ্গা ইস্যুটি আলোচনায় থাকবে বলে জানান চিমিয়াও ফান।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here