সিলেটে বালু উত্তোলন ঠেকিয়ে দিলেন স্থানীয়রা : গুলিবিদ্ধ ৩

0
72

সিলেটের গোলাপগঞ্জে ড্রেজার দিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলন ঠেকিয়ে দিলেন এলাকাবাসী। গুলিবর্ষণের মুখেও স্থানীয়দের ইস্পাত কঠিন প্রতিরোধের মুখে সরকারদলীয় চিহ্নিত বালুখেকো চক্রের সদস্যরা জীবন নিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা শুক্রবার একজোট হয়ে প্রথমে বালু উত্তোলনকারীদের বাধা দেন। এ নিয়ে পরে দু’পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে হঠাৎ করে ড্রেজারের ভেতর থেকে গ্রামবাসীকে লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীরা গুলিবর্ষণ শুরু করে। এতে তিনজন মাটিতে লুটিয়ে পড়লে গ্রামবাসী আরও মারমুখী হয়ে ওঠেন, চলে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া। এ ঘটনায় তিনজন গুলিবিদ্ধসহ কয়েকজন আহত হন। খবর পেয়ে আশপাশ থেকে দলে দলে লোকজন ছুটে আসেন। শেষ পর্যন্ত প্রতিরোধের মুখে বালুখেকোরা পালিয়ে যায়। আহতদের সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সূত্র বলছে, উপজেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আকবর আলী ফখরের ইন্ধনে এ হামলা চালানো হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী বলছেন, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পৌর এলাকার সরস্বতী কান্দিগাঁও খেয়াঘাটের পার্শ্বে সুরমা নদীর তীর থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছিল বালুখেকোরা। এলাকাবাসী তাদের নিষেধ করলে এ নিয়ে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এ সময় হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে ড্রেজারে থাকা সন্ত্রাসীরা তাদের ওপর গুলিবর্ষণ শুরু করে। এতে রুহেল আহমদ (২৪), সালাউদ্দিন (২৬) ও সফই মিয়া (৩০) গুলিবিদ্ধ হন। আহত অন্যদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। আহতদের সিলেটের বিভিন্ন ক্লিনিক ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ফের হামলার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

জানতে চাইলে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মীর মোহাম্মদ আবু নাসের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তিনি বলেন, শুনেছি গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম ফজলুল আলম জানান, অবৈধ বালু উত্তোলনের বিষয়টি বারবার স্থানীয় প্রশাসনকে অবগত করার পরও তারা কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম জানান, বালু উত্তোলনে বাধা দেয়ায় শটগানের গুলি ছুড়েছে বালু উত্তোলনকারীরা। আমি গ্রামবাসীর সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছি। তারা মামলা দিলে আমরা ব্যবস্থা নেব। তিনি আরও জানান, শুনেছি যারা বালু উত্তোলন করছে তারা সরকারদলীয় লোক। তারা গায়ের জোরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছিল। তবে তারা যে দলেরই হোক প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here