সোরিয়াসিস রোগের প্রকোপ

0
377

চিকিৎসকেরা বলছেন, সোরিয়াসিস ছোঁয়াচে চর্মরোগ নয়। দেশেই এই রোগের চিকিৎসা আছে। রোগ থেকে আরোগ্য পেতে নিয়মিত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। সঠিক চিকিৎসা পেলে রোগের প্রকোপ অনেক কম হবে।

‘বিশ্ব সোরিয়াসিস দিবস’ উপলক্ষে আজ রোববার সকালে রাজধানীর শাহবাগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) বটতলায় এক আলোচনায় চিকিৎসকেরা এসব কথা বলেছেন।

সোরিয়াসিস অ্যাওয়ারনেস ক্লাব এই আলোচনার আয়োজন করে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘সোরিয়াসিস! জানুন, সচেতন হন’।

আলোচনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল হাসান খান বলেন, সোরিয়াসিস সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করার জন্য এই আয়োজন। অনেকে এই রোগকে অবহেলা করেন। চিকিৎসকের কাছে যেতে চান না। এতে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জটিলতাও বাড়তে থাকে। সোরিয়াসিস বিশেষজ্ঞ না হলে রোগটি নির্ণয় করা একটু কঠিন। তাই হাতে-পায়ে চর্মরোগ হলেই চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের কাছে যাওয়া উচিত। লক্ষ্য থাকবে—তাড়াতাড়ি যেন চিকিৎসা হয়।

কামরুল হাসান খান আরও বলেন, দেশে সোরিয়াসিস রোগের চিকিৎসার সুযোগ রয়েছে। তবে জেলা-উপজেলাতে ব্যাপকভাবে এই রোগের সেবা নেই। বিএসএমএমইউ থেকে যত সহযোগিতা প্রয়োজন, তা দেওয়া হবে।

আলোচনা শেষে বিএসএমএমইউ বটতলা থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় চিকিৎসক, সোরিয়াসিস অ্যাওয়ারনেস ক্লাবের সদস্যরা অংশ নেন।

জনসচেতনতা তৈরি করতে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব সোরিয়াসিস অ্যাসোসিয়েশন ১৩ বছর ধরে দিবসটি পালন করছে। সংস্থাটি বলছে, সারা বিশ্বে সাড়ে ১২ কোটি মানুষ সোরিয়াসিস রোগে আক্রান্ত। ৫৬টি দেশ এই সংস্থার সদস্য। বাংলাদেশে এ বছর থেকে দিবসটি পালন শুরু হলো। বাংলাদেশে কত মানুষ এই রোগে আক্রান্ত, তার কোনো হিসাব বা পরিসংখ্যান নেই।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here