হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি নারীর তুলনায় পুরুষের বেশি

0
70

হার্ট অ্যাটাক এক নীরব ঘাতক। যে কেউ যেকোনো সময় এর শিকার হতে পারেন।

সাধাররণত জীবনযাপনে অনিয়ম হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়। কিন্তু এবার গবেষকরা বলছেন, প্রায় এক শ হার্ট অ্যাটাকের মধ্যে একটি যৌনতার কারণে হয়ে থাকে। তবে এ-ধরনের আক্রান্তদের মধ্যে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যাই বেশি।

সম্প্রতি এ বিষয়ে একটি গবেষণা করেছেন সিডার্স-সিনাই মেডিক্যাল সেন্টার হার্ট ইনস্টিটিউটের গবেষকরা।

তারা এ গবেষণার জন্য হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত ৪৫২৫ রোগীর তথ্য বিশ্লেষণ করেন। এতে তারা দেখেছেন প্রায় দশমিক ৭ শতাংশ পুরুষ রোগীর হার্ট অ্যাটাকের কারণ ছিল যৌনতা। অন্যদিকে দশমিক শূন্য এক শতাংশ নারী রোগীর হার্ট অ্যাটাকের কারণ ছিল যৌনতা।

অবশ্য যৌনতার সময় সবাই হৃদরোগে আক্রান্ত হননি। ৫৫ শতাংশ ব্যক্তি সরাসরি যৌনতার সময় হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হন।

অন্যদিকে যৌনতার ১৫ মিনিট সময়ের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হন বাকিরা।

গবেষকরা বলছেন, আগে থেকে যাদের হৃদরোগ আছে তারাই যে শুধু যৌনতার কারণে হঠাৎ করে হৃদরোগে আক্রান্ত হন, তা নয়। যে কেউ হঠাৎ যৌনতার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

হার্ট অ্যাটাকের সঙ্গে হৃদরোগের কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। হার্ট অ্যাটাকে হঠাৎ হৃৎপিণ্ড গণ্ডগোল শুরু করে এবং বিট করা বন্ধ করে দেয়। অনেকেই এতে অজ্ঞান হয়ে যান এবং আরো জটিল পরিস্থিতির তৈরি হয়। তবে হৃদরোগ রক্তচলাচলে প্রতিবন্ধকতা থেকে শুরু করে আরো বহু বিষয়ে হতে পারে।

গুরুত্বপূর্ণ এ গবেষণাটি করেছেন ড. সুমিত চুগ। তিনি সিডার্স-সিনাই হার্ট ইনস্টিটিউটের গবেষক। তিনি বলেন, যৌনতার সঙ্গে হৃদরোগের সম্পর্ক নির্ণয় করার ক্ষেত্রে এটি প্রথম গবেষণা।

এ বিষয়ে গবেষণাটির ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে জার্নাল অব দ্য আমেরিকান কলেজ অব কার্ডিওলজিতে। এ ছাড়া আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাতেও এটি উপস্থাপিত হবে।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here