সেগুনবাগিচায় এভারগ্রীন জুম বাংলাদেশের উদ্যােগে ছাত্র -ছাত্রীদের মাঝে শীতের জ্যাকেট বিতরন এবং শীতকালীন পিঠা উৎসব

0
22
সেগুনবাগিচায় এভারগ্রীন জুম বাংলাদেশের উদ্যােগে ছাত্র -ছাত্রীদের মাঝে শীতের জ্যাকেট বিতরন এবং শীতকালীন পিঠা উৎসব

সালে অাহমেদ, ডেমরা থানা, ঢাকাঃ

রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এভারগ্রীন জুম বাংলাদেশের উদ্যােগে জুম বাংলাদেশ স্কুলের প্রায় তিনশতাধিক কোমলমতি ছাত্র -ছাত্রীদের মাঝে শীতের জ্যাকেট বিতরন এবং শীতকালীন পিঠা উৎসব পালন করা হয়।রাজধানীর চারটি স্থানে(গুলিস্তান, শাহবাগ,রমনা,সেগুনবাগিচা) জুম বাংলাদেশ অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য শিক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করে।

এভারগ্রীন জুম বাংলাদেশের জ্যাকেট বিতরন ও শীতকালীন পিঠা উৎসবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমন, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সভাপতি গনি মিয়া বাবুল, এটিএন বাংলার বিশেষ প্রতিনিধি কেরামত উল্লাহ বিপ্লব,ওয়ালটন গ্রুপের ফার্স্ট সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর মিলটন আহমেদ, চিত্র নায়িকা শাহানুর, চিত্র নায়ক সাইফ খান, মাকেন্টাইল ব্যাংকের পাবলিক রিলেশন অফিসার আব্দুল হামিদুল সোহাগ, আমেরিকা প্রবাসী মোহাম্মদ আতাহার আলী খান (ভিটা)।

এছাড়া অারো উপস্থিত ছিলেন স্কুলের উপদেষ্টা রুহুল আমিন সেলিম, ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হাসান, ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিম, মিজান রহমান, সাইফুল ইসলাম খান, জেরিন সুলতানা।

এভারগ্রিন জুম বাংলাদেশের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক লিও রাসেল সরকার বলেন, জুম বাংলাদেশ প্রতি বছর শীতের সময় জুম বাংলাদেশ স্কুলের সব শিশুদের কম্বল দিয়েছে, তবে এবার অামরা (জুম বাংলাদেশ) কিছু ব্যতিক্রম চিন্তা করি।আসলে কম্বল দিয়ে এই শিশুদের শীত নিবারণ করা সম্ভব না । কম্বল কোনো না কোন ভাবে ম্যানেজ হয়ে যায় শিশুদের । আর এ কম্বলের প্রয়োজনও হয় শুধু ঘুমানোর সময় অর্থ্যাৎ রাতে। বাকী সময় কাটে তাদের প্রচন্ড শীতে নিদারুণ কষ্টে। এ শীতে মুলত শীত নিবারণের জন্য প্রয়োজন পড়ে জ্যাকেটের যা তারা সারাদিন পড়ে থাকতে পারে। তাই এবার শীতে আমাদের সবচেয়ে বড় টার্গেট জুম বাংলাদেশ স্কুলের ৩০০ শিশুকে নতুন জ্যাকেট তৈরি করে দেওয়া ।

লিও রাসেল সরকার অারো বলেন যে,আজ আমরা সফল, আমরা জুম বাংলাদেশ স্কুলের সব ছাত্রছাত্রীদের গায়ে শীতের জ্যাকেট তুলে দিতে পেরেছি।এজন্য এভারগ্রীন জুম বাংলাদেশের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here