মামলা করেছে পুলিশ, ভয়ে গ্রামছাড়া মানুষ

0
124

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার মুগকান্দি গ্রামে মসজিদ কমিটি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে গত রোববার সকালে মামলা করেছে। তবে ওই ঘটনায় নিহত দুজনের কারও পরিবারই গতকাল রাত আটটা পর্যন্ত মামলা করেনি।

এদিকে গ্রেপ্তার-নির্যাতন আতঙ্কে গ্রামের পুরুষদের পাশাপাশি বেশির ভাগ শিশু ও নারীও বাড়িছাড়া। স্কুলগামী দুই শিশুকে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে।

গ্রামের মসজিদের নতুন কমিটি গঠন ও ইমাম পরিবর্তন নিয়ে বিরোধের জেরে গত শনিবার সকালে দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে মারা যান যুক্তরাজ্যপ্রবাসী কবির মিয়া (৫০) ও মতিন মিয়া (৪৭)। এ ঘটনায় শিশু-নারীসহ আহত হন শতাধিক ব্যক্তি।

মুগকান্দি গ্রামজুড়ে এখন সুনসান নীরবতা। অনেক বাড়িঘরে তালা ঝুলছে। কোনো কোনো মহল্লায় শিশু ও বৃদ্ধ বয়সের কয়েকজনকে দেখা গেলেও তাঁদের চোখে-মুখে ছিল আতঙ্কের ছাপ। ওই সংঘর্ষের কারণে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করার পর থেকে সবাই ভয়ে রয়েছে।

মামলার বিষয়ে বাহুবল মডেল থানার ওসি মাজহারুল হক বলেন, ওই সংঘর্ষের সময় পুলিশের সদস্যরা আক্রান্ত হয়েছেন। পাশাপাশি দুই পক্ষই দাঙ্গা-হাঙ্গামায় লিপ্ত হয়। এসব ঘটনায় থানার এসআই আবদুর রহিম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এ মামলায় উভয় পক্ষের ৭৬ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে ২০০-২৫০ জনকে।

নির্যাতনের অভিযোগ

গতকাল সকালে মুগকান্দি গ্রাম থেকে স্কুলে যাচ্ছিল পঞ্চম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থী। গ্রামের কোনামারা এলাকায় পৌঁছালে ‘ঘর থেকে কেন বের হলি’ বলেই এক পুলিশ সদস্য তাদের লাঠিপেটা শুরু করেন। বেনির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন বাহুবল মডেল থানার ওসি মাজহারুল হক। তিনি বলেন, তারপরও তাঁরা বিষয়টির খোঁজ নিয়ে দেখবেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here