খুলনায় অপহৃত ছাত্রী বগুড়ায় উদ্ধার

0
463

খুলনা থেকে অপহরণের ছয় দিনের মাথায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী সুবর্ণা আক্তার লুৎফাকে (১০) বগুড়ার মহাস্থানগড় জাদুঘর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নারীসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে মহাস্থানের হজরত শাহ সুলতান মাজার এলাকা থেকে ওই দুজনকে আটক করে খুলনার খান জাহান আলী থানা পুলিশ। পরে স্থানীয় সাংবাদিকদের সহায়তায় মহাস্থানগড় জাদুঘর থেকে সুবর্ণাকে উদ্ধার করা হয়।

আটক ওই দুজন হলেন—আব্দুল মোমিন (২৮) ও রেখা বানু (২৪)।

খান জাহান আলী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল রহিম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘ছয় দিন যাবত চেষ্টা করা হয় শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য। অবশেষে মহাস্থানগড় এলাকায় তাকে পাওয়া গেল।’

গত ২৪ আগস্ট দুপুরে খুলনা সদর উপজেলার গাড়ীপাড়া এলাকা থেকে সুবর্ণাকে অপহরণের পর বিষয়টি খান জাহান আলী থানা পুলিশকে জানায় তার পরিবার। এরপর তাকে উদ্ধারে মাঠে নামে পুলিশ।

ওই ছাত্রীর বাবা মিনহাজুল ইসলাম বলেন, ‘বাড়ির পাশে অপহণকারীরা একটি ভাড়া বাসায় থাকতো। একপর্যায়ে তারা সুর্বণাকে কৌশলে গত ২৪ আগস্ট দুপুরে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর মোবাইল ফোনে তারা মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে আসছিল। পরে খান জাহান আলী থানায় ষয়টি জানানো হয়।’

পুলিশ জানায়, সুবর্ণাকে উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। কিন্তু অপরণকারীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে যায়। পরে মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে অবস্থান জানতে পেরে মঙ্গলবার রাতে খান জাহান আলী থানা পুলিশের একটি দল মহাস্থানগড়ে যাত্রা করে। এরপর সকালে দুই অপহরণকারীকে আটক করা হয়। তারা প্রথমে সুবর্ণাকে অপহরণের কথা অস্বীকার করে। পরে স্থানীয় সাংবাদিকদের সহায়তায় জাদুঘর এলাকা থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here