নির্বাচনের আগে দুই দলের সংসদ ভেঙে দেওয়ার প্রস্তাব

0
75

নির্বাচনের তিন মাস আগে সংসদ ভেঙে দেওয়া, বিচারিক ক্ষমতাসহ সেনাবাহিনী মোতায়েন, নির্বাচনে ৫০ শতাংশের কম ভোট পড়লে আবারও নির্বাচন করাসহ নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) ২৪ দফা প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ। আর সংসদ ভেঙে নির্বাচন, সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসন বিলুপ্ত করাসহ ৩৮ দফা প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন।

আজ সোমবার ইসির সংলাপে আলাদাভাবে অংশ নিয়ে দল দুটি এসব প্রস্তাব দেয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে অংশীজনদের সঙ্গে সংলাপের অংশ হিসেবে আজ সকালে মুসলিম লীগ ও বিকেলে খেলাফত আন্দোলন ইসির সংলাপে অংশ নেয়।

মুসলিম লীগের দেওয়া অন্য প্রস্তাবগুলোর মধ্যে আছে নিবন্ধিত বা এখন পর্যন্ত সংসদে যেসব দলের প্রতিনিধিত্ব ছিল তাদের প্রতিনিধি নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন, রিটার্নিং কর্মকর্তাদের দায়িত্ব জেলা প্রশাসকের পরিবর্তে অতিরিক্ত জেলা জজকে দেওয়া, ইভিএম ব্যবহার না করা, সব কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা বসানো, ‘না’ ভোট পুনঃপ্রবর্তন না করা ইত্যাদি।

অন্যদিকে খেলাফত আন্দোলনের দেওয়া অন্যান্য প্রস্তাবগুলোর মধ্যে আছে নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দেওয়া, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল করা, রাজনৈতিক দলের কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারী রাখার বিধান বাতিল করা, ভোটের আগের দিন থেকে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা ইত্যাদি।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে সংলাপে অন্য কমিশনার ও নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এখন পর্যন্ত ২০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করেছে ইসি। আগামী ৯ অক্টোবর সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি, ১৫ অক্টোবর বিএনপি এবং ১৮ অক্টোবর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপ করবে ইসি। আগামী ১৯ অক্টোবর রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

বিএনপি জানিয়েছে, তারা ইতিমধ্যে ইসির সংলাপের আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ পেয়েছে। বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান প্রথম আলোকে বলেন, তাঁরা ইসির চিঠি পেয়েছেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here