নোয়াখালী জেলা আ.লীগের বর্ধিত সভা > উপদেষ্টার পদ থেকে মোহাম্মদ আলীকে অব্যাহতির সিদ্ধান্ত

0
50

নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টার পদ থেকে হাতিয়ার সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ আলীকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ ছাড়া একই সভায় ২৩ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় জেলার সেনবাগ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনও স্থগিত করা হয়েছে। রোহিঙ্গা সংকট সামাল দিতে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় নেতারা ব্যস্ত থাকায় সম্মেলন করা যাচ্ছে না বলে সভায় জানানো হয়।

বিকেলে শহরের আবদুল মালেক উকিল সড়কের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী-২ আসনের সাংসদ মোরশেদ আলম, নোয়াখালী-৩ আসনের সাংসদ মামুনুর রশিদ কিরণ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু তাহের, মিয়া মোহাম্মদ শাহজাহানসহ জেলার দুই-তৃতীয়াংশের বেশি নেতা।

সন্ধ্যায় দলীয় এসব সিদ্ধান্তের বিষয়ে নিশ্চিত করেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল মমিন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, হাতিয়ায় সাম্প্রতিক একাধিক রাজনৈতিক সহিংসতায় জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ আলীর নাম উঠে আসে। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলাও হয়েছে। এ জন্য অব্যাহতির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলা কমিটির সিদ্ধান্তটি সুপারিশ আকারে অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রে পাঠানো হবে। অনুমোদিত হলে তিনি আর উপদেষ্টা থাকবেন না।

উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতির সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানতে চাইলে সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ আলী গতকাল রাতে প্রথম আলোকে বলেন, ‘কাউকে পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষমতা জেলা কমিটির নেই। অতীতেও আমাকে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল, কিন্তু ওই সিদ্ধান্ত কেন্দ্রেও পৌঁছায়নি। যাঁরা পদের ব্যবসা করেন তাঁরাই অন্যের পদ নিয়ে টানাটানি করেন।’

মোহাম্মদ আলী হাতিয়ার বর্তমান আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ আয়েশা ফেরদাউসের স্বামী।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here