সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার পলাতক ৯ আসামীর আত্মসমর্পণ

0
77

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে আলোচিত সমকাল পত্রিকার প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার পলাতক নয় আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে বিচারক মো. হাবিবুর রহমান শুনানী শেষে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। সন্ধ্যায় তাদের আদালত থেকে বিশেষ নিরাপত্তায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সিরাজগঞ্জ কোর্টে আসা শাহজাদপুর আমলী আদালতের জেনারেল রেকর্ড অফিসার (জিআরও) আতাউর রহমান জানান, শাহজাদপুর আমলী আদালতের বিচারক ছুটিতে থাকায় শিমুল হত্যা মামলার শুনানী সিরাজগঞ্জ মুখ্য বিচারকি আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অনুষ্ঠিত হয়। এ আদালতেই আসামীরা তাদের আইনজীবিদের মাধ্যমে আত্মসমর্পন করে জামিন আবেদন করেন। আসামিরা- মানিক (৩৫), পিযুস (৪৫), কালু (২৮), সিথি কন্ঠ ঘোষ ওরফে শিমুল (৪৮), নিত্যনন্দ রায় (৪৮), জহির প্রামানিক (৩২), জাহিদুল (৩৬), ছোট মানিক (২৮) এবং রবিউল ইসলাম (৩০)। এর আগে ২২শে আগষ্ট আদালতে এ মামলার আরো ৭ আসামী আত্মসমর্পন করে। সাংবাদিক শিমুল হত্যাকা-ের ঘটনায় শাহজাদপুরের সাময়িক বহিস্কৃত মেয়র হালিমুল হক মিরু, তার সহোদর হাবিবুল হক মিন্টু ও বহিস্কৃত উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এ. কে. এম. নাসির উদ্দিনসহ পুলিশ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরন করে। এর মধ্যে মিন্টু ও নাছিরসহ সকলেই উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হলেও মিরু এখনও জেলা কারাগারেই রয়েছেন। এ মামলায় এ পর্যন্ত ৩০ জন গ্রেপ্তার হলেও চার্জশিটভুক্ত আরও ৮ আসামী এখনও পলাতক রয়েছে। উল্লেখ্য, ২রা ফেব্রুয়ারী শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মেয়র হালিমুল হক মিরু’র সহোদর হাসিবুল হক পিন্টু অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে হাত-পা ভেঙে দেবার খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মেয়রের বাড়ি ঘেরাও করে। এ সময় মেয়র ও তার ছোট ভাই মিন্টুর দুটি শটগান থেকে গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হবার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়রসহ ১৮জনকে আসামি করে মামলা করলেও এজাহারভুক্ত ও ঘটনার সময়ের ভিডিও ফুটেজ দেখে মোট ৩৮জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় পুলিশ। অপরদিকে, ছাত্রলীগ নেতা বিজয়কে মারপিটের অভিযোগে তার চাচা এরশাদ আলী বাদী হয়ে প্রায় একই আসামিদের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। সে মামলাও মেয়রসহ ১৮জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয়।

সংগ্রহ

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here