চলচ্চিত্র শিল্পকে এগিয়ে নেয়ার জন্য তৈরি হচ্ছে নতুন একটি সংগঠন

0
81

অনেকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল দেশের চলচ্চিত্র শিল্পকে এগিয়ে নেয়ার জন্য ও সব শিল্পী কলাকুশলীর অধিকার, স্বার্থ ও মর্যাদা রক্ষায় তৈরি হচ্ছে নতুন একটি সংগঠন। গতকাল দুপুরে ঢাকা ক্লাবে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ফোরাম’ নামে সেই সংগঠনের যাত্রা ঘোষণা করা হয়। আর এই সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন চলচ্চিত্র শিল্পী, পরিচালক. প্রযোজক, প্রদর্শকরা সহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। প্রথমে উপস্থাপনা করেন অভিনেতা আহমেদ শরীফ। এরপর মূলপর্বের অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী ও নুসরাত ফারিয়া। নতুন সংগঠন ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ফোরাম’-এর সভাপতি পদে আছেন প্রযোজক নাসিরউদ্দিন দিলু ও সাধারণ সম্পাদক পরিচালক কাজী হায়াৎ। সহ-সভাপতি হিসেবে আছেন মোহাম্মদ হোসেন (প্রযোজক), নাদের চৌধুরী (অভিনেতা ও পরিচালক), ড্যানি সিডাক (প্রযোজক ও অভিনেতা), নাদের খান (প্রযোজক ও অভিনেতা) ও সেলিম খান (প্রযোজক)। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু (হল মালিক)। সাংগঠনিক সম্পাদক এম ডি ইকবাল (প্রযোজক), সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ রমিজ উদ্দিন (প্রযোজক ও অভিনেতা), ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক ফারহান আমিন নূতন (অভিনেত্রী), আন্তর্জাতিক সম্পাদক আরিফা পারভীন জামান মৌসুমী (অভিনেত্রী), দপ্তর সম্পাদক জাহিদ হোসেন (পরিচালক) ও কোষাধ্যক্ষ কামরুজ্জামান কমল (অভিনেতা)। এছাড়া ফোরামের সদস্য হিসেবে আছেন আব্দুল আজিজ (প্রযোজক), ওমর সানী (অভিনেতা), কাজী মারুফ (অভিনেতা), বিদ্যা সিনহা মিম (অভিনেত্রী), ববি (অভিনেত্রী), অমিত হাসান (অভিনেতা), শবনম বুবলি (অভিনেত্রী), শিবা শানু (অভিনেতা), নানা শাহ (অভিনেতা), ডি জে সোহেল (অভিনেতা), হাফিজুর রহমান সুরুজ (অভিনেতা), বড়ুয়া মনোজিত ধীমান (বাংলাদেশ দর্শক সমিতি), সিরাজুল ইসলাম (বুকিং এজেন্ট), অজিত নন্দী (বুকিং এজেন্ট) ও শাকিব খান (অভিনেতা)। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, চলচ্চিত্রের উন্নয়নের স্বার্থে সকলকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। এটা খুবই ভালো একটি উদ্যোগ। আমার মনে হয় নতুন এই সংগঠনটির কর্মীরা দ্রুত অন্য সংগঠনগুলোর নেতাদের সঙ্গে বসে চলচ্চিত্রের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলবেন। আর তাদেরকেও এখানে অংশ নেয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানাবেন। এখনো ভালো চলচ্চিত্র নির্মাণ হচ্ছে। সরকারও চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি চলচ্চিত্রকে ভালোবাসেন। তাই আমি বিশ্বাস করি সকলে মিলে চেষ্টা করলে চলচ্চিত্রের সংকট দূর করা সম্ভব। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ফোরামের সাধারণ সম্পাদক কাজী হায়াৎ বলেন, আমাদের চলচ্চিত্র আজ এক বিশাল সংকটে রয়েছে। সে সংকট থেকে উত্তরণের জন্য যারা এ দেশের চলচ্চিত্রকে ভালোবাসি তারা এক হয়ে কাজ করার জন্য সংগঠনটির জন্ম। চলচ্চিত্র বিষয়ক সেমিনার ও দুস্থ শিল্পীদের পাশে থাকবো আমরা। অনুষ্ঠানে সবশেষে চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা ও ফোরামের সদস্য শাকিব বলেন, অবহেলিত ও বঞ্চিত শিল্পীদের জন্যই এই প্ল্যাটফরম। আমি প্রথমে এ ফোরামের চিন্তা-ভাবনা নিয়ে প্রযোজক এম ডি ইকবালের সঙ্গে কথা বলি। তারপর জাজের আজিজ ভাই, প্রযোজক দিলুভাইসহ ঢাকা ক্লাবে বেশ কিছুদিন আগে কয়েকজন মিলে বসেছিলাম। আজ এটি বাস্তবায়ন হলো। আমাদের পাশের দেশ কলকাতায়ও একটা সময় চলচ্চিত্রের সংকটাবস্থা পার করেছে। তারা আজ এগিয়ে গেছে। তাই আমার বিশ্বাস সকলে মিলে এক ছাতার নিচে কাজ করলে আমাদেরও এই সংকট দ্রুত কেটে যাবে। অভিনেত্রী মৌসুমী বলেন, গোটা চলচ্চিত্রের ভালো কিছুর প্রত্যাশায় চলচ্চিত্র ফোরাম গঠন করা হয়েছে। এটা কারো একার স্বার্থ উদ্ধারের সংগঠন নয়। আমরা সবাই চলচ্চিত্রের উন্নতি চাই। চলচ্চিত্র বাঁচলে, শিল্পীরা বাঁচবে, সিনেমা হল বাঁচবে। অনুষ্ঠানে অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, পরিচালক বদরুল আনাম সৌদ, অভিনেত্রী সুবর্ণা মোস্তাফা, পরিচালক ও অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওনসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here