নভেম্বরে ঢাকা আসছেন পোপ

0
152

পোপ ফ্রান্সিসের বাংলাদেশ সফর নিয়ে সোমবার রাজধানীর আর্চবিশপ ভবনে সংবাদ সম্মেলন করা হয়। ছবি: সাবিনা ইয়াসমিনখ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস তিন দিনের সফরে বাংলাদেশে আসবেন। আগামী ৩০ নভেম্বর তাঁর বাংলাদেশে আসার কথা। সম্প্রীতি ও শান্তির বার্তা নিয়ে তিনি এই সফরে আসছেন।

আজ সোমবার দুপুরে ঢাকার কাকরাইলে আর্চবিশপ হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ঢাকার আর্চবিশপের কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও। তিনি বলেন, পোপ ফ্রান্সিসের সফরের দুটি দিক আছে। প্রথমত, পোপ ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে সফর করবেন। দ্বিতীয়ত, তিনি খ্রিষ্টানদের ক্যাথলিকমণ্ডলীর প্রধান ধর্মগুরু ও প্রধান পালক হিসেবে খ্রিষ্টান সমাজে পালকীয় সফর করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভ্যাটিকান রাষ্ট্রদূত আর্চবিশপ জর্জ কোচেরি বলেন, পোপ ফ্রান্সিসকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন। তিন দিনের এই সফরে পোপ ফ্রান্সিস নাগরিক সমাবেশ, সমাজের দুস্থ মানুষের প্রতিনিধি ও তরুণদের সঙ্গে দেখা করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে পোপের সফরের সম্ভাব্য কর্মসূচি তুলে ধরা হয়। সম্ভাব্য কর্মসূচিগুলো হলো জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ, একটি নাগরিক সমাবেশ, বাংলাদেশের কার্ডিনাল-আর্চবিশপদের সঙ্গে সাক্ষাৎ, ক্যাথলিকমণ্ডলী পরিচালিত দুস্থ, প্রতিবন্ধী, অসুস্থ মাদকাসক্ত ও অনাথদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ, চার্চের যুবসমাজের প্রতিনিধি ও চার্চ পরিচালিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকমণ্ডলীর প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ।

পোপ ফ্রান্সিসের বাংলাদেশ সফর উপলক্ষে একটি লোগো ও একটি ওয়েবসাইট (www.popebd.info) উদ্বোধন করা হয়। এই ওয়েবসাইটে পোপের বাংলাদেশ সফরের সব তথ্য পাওয়া যাবে।

এর আগে ১৯৮৬ সালের ১৯ নভেম্বর পোপ দ্বিতীয় জন পল এক রাষ্ট্রীয় সফরে বাংলাদেশে এসেছিলেন।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here