জোট ছাড়ার সিদ্ধান্তের পর বিজেপির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছেন টিডিপির নেতারা।

0
81
জোট ছাড়ার সিদ্ধান্তের পর বিজেপির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছেন টিডিপির নেতারা।

ভারতে বিজেপির নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন এনডিএ জোট থেকে চলে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে শরিক দল তেলেগু দেশম পার্টি (টিডিপি)। আজ শুক্রবারই জোট ছাড়ার ঘোষণা দেয় টিডিপি। অন্ধ্রপ্রদেশে ক্ষমতাসীন এ দলটির সিদ্ধান্তে স্বাগত জানিয়েছেন ভারতের একাধিক রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতারা। কয়েকটি দল এনডিএ সরকারের বিরুদ্ধে টিডিপির অনাস্থা ভোটের প্রস্তাবেও সমর্থন জানিয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

খবরে জানানো হয়, জোট ছাড়ার সিদ্ধান্তের পর বিজেপির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছেন টিডিপির নেতারা। দলের নেতা সি এম রমেশ, থোটা নরসিমান এবং রবীন্দ্র বাবু বিজেপির প্রতি তাদের ক্ষোভ তুলে ধরেছেন। দলের নেতা রমেশ বিজেপি বা ভারতীয় জনতা পার্টির নতুন নামকরণ করেছেন। তিনি বলেছেন, বিজেপির অর্থ হলো ‘ব্রেক জনতা প্রমিজ’ বা জনতার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গকারী।
টিডিপির নেতারা জানান, তারা বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব তুলবে।
টিডিপির আরেক সংসদ সদস্য জয়দেব গাল্লা বলেছেন, ‘বিজেপি নোংরা খেলা খেলতে শুরু করেছে। তাঁরা তামিলনাড়ুর বড় দলগুলোর মধ্যে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা করেছেন। আর ছোট দলগুলোকে উসকে দিচ্ছে।’
অন্ধ্রের মন্ত্রী কে এস জওহর বলেছেন, বিজেপি তেলেগু মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।
টিডিপির সিদ্ধান্তে সমর্থন জানিয়েছে ভারতের কয়েকটি রাজনৈতিক দলের একাধিক শীর্ষ নেতা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘এনডিএ ছাড়ার এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। দেশকে দুর্যোগের হাত থেকে রক্ষার জন্য এ ধরনের সিদ্ধান্ত জরুরি ছিল। আমি বিরোধী সব দলকে আহ্বান জানাই, দেশকে অর্থনৈতিক দৈন্য দশা এবং রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার হাত থেকে রক্ষা করতে তারা একত্র হবেন।’

ভারতের মার্কসবাদী কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিআইএম) টিডিপির অনাস্থা ভোটের প্রস্তাবে সমর্থন জানিয়েছে। দলটির নেতা সীতারাম ইয়েচুরি বলেছেন, অন্ধ্রপ্রদেশকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ ক্ষমার অযোগ্য।

image_pdfimage_printPrint

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here